গৃহশিক্ষক গীতালি দাস গুপ্তার স্মৃতিতে শিশু শেখ রাসেল

গৃহশিক্ষক গীতালি দাস গুপ্তার স্মৃতিতে শিশু শেখ রাসেল: গীতালি দাশগুপ্ত নাজিমুদ্দিন কলেজ থেকে বিএ পাস করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের এম এ প্রথম বর্ষে ভর্তি হয়েছেন। খুলনার মানুষ আওয়ামী লীগের কোষাধ‍্যক্ষ মহসিন সাহেবের বাসা ঢাকার লালমাটিয়ায়। তার তিন মেয়েকে পড়ানোর জন্য আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রাজ্জাক ব‍্যবস্থা করে দিয়েছেন। গীতালি ২০ নম্বর ফুলার রোডের  ড.…

ভোট

ভোট দেওয়ার পদ্ধতি আবিষ্কার একদিনে হয়নি। একজন শাসকের জোর করে গাদিতে থাকা, যখন যা ইচ্ছে তাই করা, আর্থিক স্বেচ্ছাচারিতা, যৌনতা ইত্যাদি কারণে পৃথিবীতে অনেক বিপ্লব হয়েছে। অনেক মানুষের প্রাণ গেছে। শেষমেশ শাসিত’র মতামতের ভিত্তিতে শাসন করা বা শাসিত হওয়ার পক্ষে মতামত দিয়েছে। আজকের গণতন্ত্র এই জায়গায় এসেছে। এজন্য অনেকের ত্যাগ-তিতিক্ষা আছে। আমি তখন গোপালগঞ্জ জেলা…

উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা, শিবালয়, ১৯৯২

তিন বছর শিবালয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছিলাম। অনেক experiment করেছি অনেক, অনেক experimenter বিষয়বস্তু হয়েছি। বর্ষার দুর্বার স্রোত ছাড়াও ঋতু পরিবর্তনের সময় দমকা হাওয়ায় যমুনায় লঞ্চডুবি হতো। চির জীবনের একটা অদম্য কৌতূহল না জানা কে জানা। একবার লঞ্চডুবিতে যাত্রীসহ লঞ্চ নিখোঁজ হল। একটা লঞ্চে নিখোঁজ যাত্রীর খোজে যমুনা বেরিয়ে পড়লাম। তখন আরিচায় লঞ্চঘাট। আরিচা এখনকার…

উপজেলা ম্যাজিস্ট্রেট, টুঙ্গিপাড়া, ১৯৮৪

সংস্থাপন বর্তমানের জনপ্রশাসন  মন্ত্রণালয় থেকে আদেশে উপজেলায় ম্যাজিস্ট্রেট টুংগীপাড়া হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে। জীবনের প্রথম মাদারীপুর থেকে টেকেরহাট হয়ে বাসে গোপালগঞ্জে পৌঁছাই। পরবর্তীতে যশোর থেকে বাসে খুলনায় এসে সন্ধ্যায় লঞ্চে উঠে সকালে পাটগাতি ঘাটে লঞ্চ পৌঁছাই। এছাড়াও যশোর-ফরিদপুর হয়ে টেকেরহাট থেকে বাসে গোপালগঞ্জ আসা যেতো। অনেকবার এই রাস্তায় এসেছি। গোপালগঞ্জ এসে মাদারীপুরের মতোই জেলা পরিষদের…

ম্যাজিস্ট্রেট, মাদারিপুর, ১৯৮৩

সদ্য চাকরি পেয়েছি, শাহবাগে সিভিল অফিসার’স ট্রেনিং একাডেমিতে প্রশিক্ষণ শেষে মাদারীপুর পোস্টিং দেয়া হল। ১৯৮৩ সালের সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকে মাদারীপুর যাই। একটা সাদা শার্ট আর কালো প্যান্ট পরে বাসে মাদারীপুর স্ট্যান্ডে পৌঁছাই। একই বাসে মোহাম্মদ আলী পাশা নামের আর একজন ম্যাজিস্ট্রেট আমার মতই যোগদানের জন্য মাদারীপুর আসেন। আমার যাওয়ার বিষয়টি আগেই এসডিও সাহেবকে জানানো…